ইনসুলিন কি | Insulin Meaning in Bengali

আজ আমি আপনাদের Insulin নিয়ে একটি বিশদ ধারনা দেব। এই আর্টিকেলে ইনসুলিন নিয়ে আমাদের মনে যে যে প্রশ্নগুলো আসে, যেমন – ইনসুলিন কি, ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স কি, ইনসুলিন কে আবিষ্কার করেন, ইনসুলিন নিঃসৃত হয় কোথা থেকে, ইনসুলিন হরমোনের কাজ , ইনসুলিন কি দিয়ে তৈরি  এই সবকিছু নিয়ে জানতে পারবেন

ইনসুলিন কি (What is Insulin in Bengali)

ইনসুলিন কি | What is Insulin in Bengali

আমাদের অগ্ন্যাশয় এবং ইনসুলিন হরমোন

প্রত্যেকটি ব্যাক্তির শরীরে এনার্জির প্রয়োজন হয়। আমাদের শরীরে এনার্জি আসে গ্লুকস থেকে । এই গ্লুকসকে এককথায় শর্করা বা sugar বলে। প্রকৃতিতে অনেক ধরনের carbohydrates থাকে যেমন – গ্যালাকটোজ, মল্টোজ, ল্যাকটোজ ইত্যাদি, কিন্তু সবচেয়ে সরল কার্বোহাইড্রেট হল Glucose

ইনসুলিন হল একটি হরমোন যা আমাদের শরীরের অগ্ন্যাশয় থেকে উৎপন্ন হয়ে রক্তে Glucose নিয়ন্ত্রন করে।

ইনসুলিন কে আবিষ্কার করেন ?

কানাডীয় চিকিৎসক, চিকিৎসাবিজ্ঞানী ফ্রেডরিক গ্র্যান্ট ব্যানটিং বিজ্ঞানী চার্লস বেস্টের সঙ্গে একত্রে ১৯২২ সালে ইনসুলিন আবিষ্কার করেছিলেন

Insulin হল প্রথম প্রোটিন যা synthesized করা হয়েছে Recombinant DNA Technology র সাহায্যে

১৯২১ সালে টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন বিজ্ঞানী ফ্রেডরিক গ্র্যান্ট ব্যানটিং, চার্লস বি বেস্ট এবং J. J. R. Macleod ইনসুলিন আবিষ্কার করেন।

Frederick Sanger প্রথম এই প্রোটিনের amino acid গঠনের ক্রম নির্ণয় করেন। ১৯২২ সালে লিওনার্দো থম্পসন নামে চোদ্দো বছরের এক কিশোরের দেহে প্রথম ইনসুলিন ইনজেক্ট করা হয়।

ওই কিশোর টাইপ ওয়ান ডায়াবিটিসে ভুগছিল। ইনসুলিন আবিষ্কারের আগে টাইপ ওয়ান ডায়াবিটিসের রোগী সাধারণত এক-দু’বছরের বেশি বাঁচতেন না। কিন্তু লিওনার্দো তার পরে তেরো বছর বেঁচেছিলেন।

ইনসুলিন কোথা থেকে নিঃসৃত হয় ? 

ইনসুলিন হরমোন নিঃসৃত হয় অগ্ন্যাশয়ের আইলেটস অব ল্যাঙ্গারহ্যান্স গ্রন্থির বিটা কোষ হতে নিঃসৃত হয়

আমাদের পাকস্থলীর পিছনদিকে অগ্ন্যাশয়ে গ্রন্থি অবস্থান করে

ইনসুলিনের প্রকারভেদ

American Diabetes Association (ADA) ইনসুলিনকে বিভিন্ন ভাবে ভাগ করেছে তার কাজের ধরন অনুযায়ী। যেমন –

  • Rapid Acting insulinএটি প্রায়শই খাবারের আগে ব্যবহৃত হয়।ই ধরণের ইনসুলিন ইনজেকশন নেওয়ার প্রায় 15 মিনিট পরে কাজ শুরু করে। এর প্রভাব তিন থেকে চার ঘন্টা স্থায়ী হতে পারে।
  • Short Acting insulinখাবারের আগে এই ইনসুলিন ইনজেক্ট করা হয়। এটি ইনজেকশন দেওয়ার 30 থেকে 60 মিনিটের পরে এটি কাজ শুরু করে এবং তার ইফেক্ট পাঁচ থেকে আট ঘন্টা অবধি চলে।
  • Intermediate Acting insulin – এই টাইপের ইনসুলিন ইনজেকশন দেওয়ার পরে এক থেকে দুই ঘন্টা পরে কাজ শুরু করে এবং এর প্রভাব 14 থেকে 16 ঘন্টা অবধি থাকতে পারে।
  • Long Acting insulinইনজেকশন নেওয়ার প্রায় 2 ঘন্টা অবধি এই ইনসুলিন কাজ শুরু করতে পারে না। এর প্রভাব 24 ঘন্টা বা তার বেশি সময় ধরে থাকতে পারে।

ইনসুলিন কিভাবে কাজ করে

Insulin একটি হরমোন যা আপনার অগ্ন্যাশয়ে তৈরি হয়, এটি আপনার পেটের পিছনে অবস্থিত একটি গ্রন্থি। এটি আমাদের শরীরকে শক্তি জোগানোর জন্য গ্লুকোজ ব্যবহার করে। গ্লুকোজ হ’ল এক ধরণের sugar যা carbohydrate যুক্ত খাবারে পাওয়া যায়।

খাবার খাওয়ার পরে, আমাদের পাচনতন্ত্রগুলি(digestive tract) কার্বোহাইড্রেটগুলি ভেঙে দেয় এবং এগুলিকে গ্লুকোজে পরিণত করে।

গ্লুকোজ তখন আপনার ক্ষুদ্রান্ত্রের বা small intestine আস্তরণের মাধ্যমে আপনার রক্ত ​​প্রবাহে শোষিত হয়। একবার গ্লুকোজ আপনার রক্ত ​​প্রবাহে (bloodstream) আসার পরে, ইনসুলিন আমাদের শরীরের কোষগুলিকে ওই গ্লুকস গ্রহণ করতে এবং সেটিকে ভেঙ্গে শক্তির তৈরির জন্য ব্যবহার করতে সাহায্য করে।

এছাড়া ইনসুলিন মানুষের রক্তে গ্লুকোজের মাত্রার ভারসাম্য রক্ষা করতেও সহায়তা করে। আপনার রক্ত ​​প্রবাহে যখন খুব বেশি গ্লুকোজ থাকে, তখন ইনসুলিন আপনার লিভারকে অতিরিক্ত Glucose সঞ্চয় করার জন্য আপনার শরীরকে signal দেয়।

আপনার রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা কম না হওয়া পর্যন্ত জমিয়ে রাখা গ্লুকোজ release করা হয় না। যেমন-  খাবারের মধ্যে বা যখন আমাদের শরীরের উপর চাপ অতিরিক্ত পড়ে থাকে বা অতিরিক্ত শক্তি বাড়ানোর প্রয়োজন হয়, রক্তে গ্লুকসের মাত্রা কমতে থাকে। সেই সময় ইনসুলিন রক্তে লিভারে জমিয়ে রাখা Glucose release করে

ইনসুলিন হরমোনের কাজ

ইনসুলিন হরমোনের প্রধান কাজ রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখা, বিশেষ করে রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ বৃদ্ধি পেলে তা কমিয়ে স্বাভাবিক করা।

এছাড়াও ইনসুলিন আরও অনেক কাজ করে

  • ইনসুলিনের কলা-কোষে glucose শোষণ বাড়ায় অর্থাৎ কোষে glucose গ্রহণে সহায়তা করে ।
  • ইনসুলিন যকৃৎ ও পেশি কোষে glucoseকে গ্লাইকোজেনে পরিণত করে জমা রাখে । glucose থেকে গ্লাইকোজেন সংশ্লেষকে গ্লাইকোজেনেসিস বলে

ইনসুলিন কি দিয়ে তৈরি

ইনসুলিন মূলত গরু এবং শূকরদের অগ্ন্যাশয় থেকে উদ্ভূত হয়েছিল।

Animal sourced insulin সাধারণত beef বা pork অগ্ন্যাশয়ের প্রস্তুতি থেকে তৈরি করা হয় এবং বহু বছর ধরে ডায়াবেটিস পরিচালনা করতে নিরাপদে ব্যবহৃত হয়। beef বা pork অগ্ন্যাশয়ের ইনসুলিন নিরাপদে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।তবে বছরের পর বছর ধরে, ইনসুলিন তৈরি পদ্ধতি অনেক বেশি মডার্ন হয়েছে। বর্তমানে মানুষের জন্য ইনসুলিন তৈরি করতে Recombinant DNA Technology র সাহায্য নেওয়া হয়।

Insulin reactions কি 

হাইপোগ্লাইসেমিয়া (Hypoglycemia) হল একটি অবস্থা যখন blood glucose level অনেক কমে যায় ইনসুলিন নেওয়ার ফলে। ইনসুলিন নেওয়ার ফলে এরকম হলে তাকে Insulin reaction বলে

অত্যধিক ব্যায়াম বা পরিশ্রম করলে বা পর্যাপ্ত পরিমাণে না খান তবে blood glucose level খুব নিচে নেমে যেতে পারে, যা Insulin reactions শুরু করতে পারে। এর কিছু লক্ষন হল –

লক্ষণ

  • ক্লান্তি
  • কথা বলতে অক্ষমতা
  • ঘাম
  • বিভ্রান্তি
  • চেতনা হ্রাস
  • খিঁচুনি
  • পেশী টান
  • চামড়া ফ্যাকাশে হয়ে যাওয়া

Treatment কি

Insulin reaction effect থামাতে আপনি দ্রুত কাজ করে এরকম carbohydrate জাতীয় খাবার রাখুন । আপনার এই কাজটি হতে পারে নিচের খাবার গুলো দিয়ে

  • নন-ডায়েট সোডা 1/2 কাপ
  • ফলের রস 1/2 কাপ
  • কিসমিস 2 টেবিল চামচ
  • এছাড়া আপনি গ্লুকাগন পেন ব্যবহার করতে পারেন

ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স কি

ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স হল একটি অবস্থা যখন আমাদের muscles, fat, এবং liver এর কোষগুলি ইনসুলিন হরমোনের প্রতি respond করেনা

এর ফলে আমাদের রক্তের glucose শোষিত হয়না। ফলে blood glucose level অনেক বেড়ে যায়

এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে অগ্ন্যাশয় তখন আরও বেশি ইনসুলিন তৈরি হয়ে blood glucose level ভারসাম্য বজায় রাখে

যাদের ক্ষেত্রে obesity, high blood pressure, high cholesterol, type 2 diabetes রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে insulin resistance এর সম্ভবনা অনেক বেশি

লক্ষণ (Symptoms of Insulin Resistance)

সাধারনত ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স এর কিছু লক্ষন দেখা যেতে পারে

  • Blood pressure বা রক্ত চাপের readings 130/80বা তারও বেশি হয়
  • glucose level 100 mg/dL এর উপর বেড়ে যায়
  • ট্রাইগ্লিসারাইড level ও বেড়ে যায় 150 mg/dL এর উপর

Tests for Insulin Resistance

Insulin Resistance নির্ণয় করতে নিচের টেস্টগুলোর সাহায্য নেওয়া হয় । Insulin Resistance নির্ণয় করতে অনেকগুলো ধাপের সাহায্য নেওয়া হয়

প্রথমে এই সম্পর্কিত আপনার পারিবারিক ইতিহাসের ব্যাপারে জানা হয়।তারপর আপনার শারীরিক বিভিন্ন পরীক্ষা যেমন ওজন, রক্ত চাপ সবকিছু চেক করা হয়

এরপর আপনাকে রক্তের যে যে টেস্ট করতে হয় –

  • Fasting plasma glucose test – এই টেস্টে আপনি ৮ ঘণ্টা না খাওয়ার পর রক্তের গুলকস টেস্ট করা হয়
  • Oral glucose tolerance test –  এখানে fasting plasma glucose test হবার পর আপনাকে sugar বা চিনি জাতীয় তরল পান করানো হয়,তার ২ ঘণ্টা পর আবার রক্ত টেস্ট করা হয়
  • Hemoglobin A1c test – এই টেস্টের মাধ্যমে আপনি আপনার আগের গত ২-৩ মাসের average blood sugar level সম্পর্কে বিশদ ধারনা দেয়

 

FAQ

ইনসুলিন কি ফ্রিজে রাখতে হয় ?

না জরুরী নয়, ইনসুলিন ঘরের তাপমাত্রায় চার-ছয় সপ্তাহ অনায়াসে রাখা যায়। ইনসুলিনের কার্টরিজ বা ভায়ালের গায়ে ৪-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে সংরক্ষণের যে নির্দেশিকা থাকে, তা মূলত স্টকিস্টদের জন্য।

ইনসুলিন কি প্রোটিন ?

হ্যাঁ, ইনসুলিন একটি প্রোটিন, যা অ্যামাইনো অ্যাসিড চেন দিয়ে তৈরি

ইনসুলিন কে আবিষ্কার করে ?

ইনসুলিন ফ্রেডরিক গ্র্যান্ট ব্যানটিং বিজ্ঞানী চার্লস বেস্টের সঙ্গে একত্রে ১৯২২ সালে ইনসুলিন আবিষ্কার করেন

ইনসুলিন ও গ্লুকাগন এর পার্থক্য কি ?

ইনসুলিন রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা হ্রাস করে যখন গ্লুকাগন রক্তের গ্লুকোজ স্তর বাড়ায়।

ইনসুলিন হল এক ধরনের

প্রোটিন জাতীয় হরমোন

সবশেষে,

আজ আমরা জেনে নিলাম, ইনসুলিন কি, ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স কি, ইনসুলিন কে আবিষ্কার করেন, ইনসুলিন নিঃসৃত হয় কোথা থেকে, ইনসুলিন হরমোনের কাজ , ইনসুলিন কি দিয়ে তৈরি  এই সবকিছু নিয়ে বিস্তারিত

আরও কিছু জানাতে বা জানতে নিচে লিখে আমাদের জানান

Source –

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *